1. admin@meghnarkagoj.com : admin :
সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৮:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দেবিদ্বার পৌর নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য প্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন দেবিদ্বারে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারর্স এসেসিয়েশন’র ঈদ পুণর্মিলনী ও আলোচনা সভা দেবিদ্বারে সুবিল ইউনিয়ন আ’লীগের উদ্যোগে আয়োজিত ইফতার মাহফিল দেবিদ্বার প্রাইভেট হসপিটাল এন্ড ডায়োগনেষ্টিক সেন্টার মালিক সমিতির আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল দেবিদ্বারে চাঁদাবাজির প্রতিবাদে শ্রমীকদের কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ,ঘন্টাব্যাপি তীব্র যানযট কুমিল্লা (উঃ) জেলা আওয়ামীলীগের সংবাদ সম্মেলন ও সাংবাদিক মতবিনিময় দেবীদ্বারে সাথী ফসল হিসাবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে বাঙ্গি’র চাষ দেবীদ্বারে শতাধিক অসহায়ের মাঝে যুবলীগের ইফতার সামগ্রী বিতরণ দেবীদ্বারের শিক্ষানুরাগী অফিসার ইনচার্জ মোঃ আরিফুর রহমানের মানবিকতা দেবীদ্বার উপজেলা আ’লীগের কমিটি গঠনে জেলা সাংগঠনিক টিমের প্রথম সভায় গুরুত্বপুর্ন সিদ্ধান্ত

দেবিদ্বারে ভানী ইউপি নির্বাচনে একই পরিবারের চাচা ও দুই ভাতিজা চেয়ারম্যান প্রার্থী

দৈনিক মেঘনার কাগজ
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২২
  • ৮৯ বার পঠিত

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ

আসন্ন কুমিল্লা দেবিদ্বার উপজেলার ১২নং ভানী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একই পরিবারের চাচা ও দুই ভাতিজা সহ তিনজন নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বিষয় নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এই ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ব্যর্থ হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন হাজী মোঃ জালাল উদ্দিন ভুইয়া। নির্বাচন অফিসের প্রাপ্ত তালিকা অনুযায়ী একই বাড়ীর উনার আরো দুই চাচাত ভাতিজা মোঃ বাহাদুর ভুইয়া এবং মাহবুবুল হাসান বাবু ও স্বতন্ত্র থেকে নির্বাচন করার লক্ষ্যে ইতিমধ্যে যাচাই বাছাইয়ে টিকেছেন এবং গন সংযোগ করছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া একই গ্রামের বাংলাদেশ জাতীয় পর্টির মনোনীত (লাঙ্গল) মোঃ আকতার হোসেন নামে আরো একজন চেয়য়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। ইতিমধ্যে একই পরিবারের তিন সদস্যের প্রার্থী ও একই গ্রামের মোট চার প্রার্থীকে নিয়ে এলাকায় আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হাজী মোঃ জালাল উদ্দিন ভুইয়া বলেন, আগে আমাদের মধ্যে একটি আলোচনা হয়েছিল,আমরা সবাই মনোনয়নপত্র দাখিল করব এবং যদি কেউ যাচাই বাছাইয়ে বাদ পড়ে যাই তবে যেন আমাদের পরিবার নির্বাচন বঞ্চিত না হই। এখন যেহেতু সবাই টিকেছে সেহেতু ২২ তারিখ পর্যন্ত আশা করি একটি সমাধান হবে। তবে কেউ নিজ থেকে সরে না দাড়ালে আমি কাউকে চাপ বা অনুনয় করে বসিয়ে দিতে রাজি নই। আমার নসীবে যদি চেয়ারম্যানি থাকে তবে অবশ্যই আমি চেয়ারম্যান হব।

এই গ্রামের জনৈক ভোটার (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) বলেন, এটি এলাকার জন্য লজ্জাজনক এবং ব্রিতকর। তাছাড়া হাজী জালাল ভুইয়া বিগত দিনে ও রাজনীতিতে আলোচনা সমালোচনায় মুখর। কারন তিনি বিএনপি করতেন এখন আওয়ামী লীগ করেন, নৌকার জন্য চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে নৌকার বিরুদ্ধে লড়ছেন। তাছাড়া বিষয়টি থেকে পারিবারিক অনৈক্যও প্রকাশ পায়। একজন চেয়ারম্যান পদ-প্রার্থীর সবচাইতে বড় শক্তি হল তার নিজ পরিবার এবং গ্রামের একতা, সেই ক্ষেত্রে স্বতন্ত্র প্রার্থী হাজী মোঃ জালাল উদ্দিন ভুইয়া এবং উনার ভাতিজারা যদি এই বিষয়গুলি শীগ্রই সমাধান না করেন তবে সুর্যপুর গ্রামে চেয়ারম্যান রাখা দুঃসাধ্য এবং বিব্রতকর।

আরো পড়ুন :  এক মিটিংয়ে ৯০০ কর্মী ছাঁটাই, চাকরি হারালেন সেই সিইও!

বিষয়টি নিয়ে এলাকার হাটে-ঘাটে মাঠে ও মিনি পার্লামেন্ট চায়ের দোকানে চলছে মুখরোচক বাকযুদ্ধ। তবে ব্যাপরটিকে কেউই ভাল চোখে দেখছেন না, সাথে ব্যাক্ত করছেন মিশ্র প্রতিক্রিয়া। উল্লেখ্য, সপ্তম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় আগামী ১২ই জানুয়ারী, মনোনয়ন বাছাই ১৫ জানুয়ারী এবং প্রত্যাহার ২২ জানুয়ারী আর ৭ই ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা